• প্রচ্ছদ
  • »
  • সারা দেশ
  • »
  • কিশোরগঞ্জে দ্বিতীয় পর্যায়ে প্রধানমন্ত্রীর ‍উপহার ঘর পাচ্ছে ৬৩১টি পরিবার

কিশোরগঞ্জে দ্বিতীয় পর্যায়ে প্রধানমন্ত্রীর ‍উপহার ঘর পাচ্ছে ৬৩১টি পরিবার

সাতকাহন রিপোর্ট

কিশোরগঞ্জে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় জমি বরাদ্দ দিয়ে ১৩ টি উপজেলার ৬৩১ টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের জন্য নতুন ঘর বরাদ্দ এসেছে। এর মধ্যে ৩৬ ৫টি ঘর নির্মাণ সম্পন্ন করা হয়েছে। আগামী ২০ জুন এসব পরিবারকে তাদের জমি ও ঘর বুঝিয়ে দেওয়া হবে।

শুক্রবার বেলা ১১টায় কিশোরগঞ্জ সার্কিট হাউজ সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম।

জেলা প্রশাসক বলেন, সদর উপজেলায় ৫০টি, হোসেনপুর উপজেলায় ১০টি, পাকুন্দিয়া উপজেলায় ৭৫টি, কটিয়াদী উপজেলায় ১৭৮টি, করিমগঞ্জ উপজেলায় ৪৩টি, তাড়াইল উপজেলায় ৮০টি, নিকলী উপজেলায় ৩০টি, বাজিতপুর উপজেলায় ২০টি, কুলিয়ারচর উপজেলায় ১০টি, ভৈরব উপজেলায় ৫টি, অষ্টগ্রাম উপজেলায় ২০টি, মিঠামইন উপজেলায় ৮০টি, এবং ইনটা উপজেলায় ৩০টি ঘর গৃহহীন ও দরিদ্র পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

তিনি আরও বলেন, দুই শতক জমি বরাদ্দ দিয়ে নতুন ঘর করে দেওয়া হচ্ছে। বিদ্যুৎ সুবিধা, পানিসহ অন্যান্য সুবিধা থাকছে নতুন ঘরে। ইতোমধ্যে প্রতিটি উপকারভোগীদের সঙ্গে ঘরগুলো হস্তান্তরের জন্য বন্দোবস্ত, রেজিস্ট্রেশনসহ সব কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। দুই কক্ষবিশিষ্ট সেমিপাকা প্রতিটি ঘরের জন্য ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা বরাদ্দ করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন এনডিসি মাহমুদুল হাসান, স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক উপ-সচিব মো. হাবিবুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(রাজস্ব) মো. নুরুজ্জামান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) মো. গোলাম মোস্তফা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(শিক্ষা ও আইসিটি) ফরিদা ইয়াসমিন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আব্দুল কাদির মিয়া প্রমুখ।

উল্লেখ্য, কিশোরগঞ্জে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় জমি বরাদ্দ দিয়ে প্রথম পর্যায়ে ১৩ টি উপজেলার ৬১৬ টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের কাছে নতুন ঘর হস্তান্তর করা হয়েছি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত